মাগুরার বাণী

বাবুখালীতে জমি নিয়ে বিরোধ, উভয় পক্ষের ১০ জন আহত

বাবুখালীতে জমি নিয়ে বিরোধ, উভয় পক্ষের ১০ জন আহত

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ

মহম্মদপুর উপজেলার বাবুখালী ইউনিয়নে গ্রামে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে দুপক্ষের সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এসময় নারীসহ অন্তত ১০ জন আহত হয়েছেন। এ ঘটনায় ররবিন্দ্রনাথ বিশ্বাসের অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে জানিয়েছেন তার পরিবার।

গ্রামে আধিপত্য বিস্তার, জমাজমি নিয়ে বিরোধ ও পূর্ব শত্রুতার জেরে এ ঘটনা ঘটেছে বলে স্থানীয়রা জানায়।

বৃহস্পতিবার বিকালে সংঘর্ষের এ ঘটনায় আহতদের উদ্ধার করে মাগুরা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

উভয় পক্ষের আহতরা হলেন, রবীন্দ্রনাথ বিশ্বাস, দীলিপ বিশ্বাস, রহিত বিশ্বাস, শুনীল বিশ্বাস, সজিব বিশ্বাস, সুভা রানী, স্মৃতি রানী, নরেশ মিত্র, সুমন মিত্র ও নারায়ণ মিত্র।

স্থানীয়রা জানান, কুলিপাড়া গ্রামের রবিদ্রনাথ বিশ্বাসের সাথে পাশ্ববর্তী বাড়ির নারায়ণ মিত্র জমি নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছিল। আজ বৃহস্পতিবার সকালে রবিন্দ্রনাথ বিশ্বাস বাথরুমের পাইপ জোড়ানোর সময় নারায়ণ মিত্র নিজের জমি দাবি করে বাঁধা দেন। পরে বাকবিতন্ডার এক পর্যায়ে হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। ওই দিন বিকালেই তারা দেশিয় অস্ত্র নিয়ে প্রথমে দীলিপ বিশ্বাসের দোকানে এসে তাকে মারধর করে। এ খবর ছরিয়ে পড়লে দুই পক্ষের সংঘর্ষে ঘটনা ঘটে। এসময় দুই পক্ষের নারীসহ ১০ জন আহত হয়েছে।

আহতদের উদ্ধার করে মাগুরা ২৫০ শয্য হাসপালে ভর্তি করা হয়েছে। পরে খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে।

রবিদ্রনাথ বিশ্বাসের ছেলে রহিত বিশ্বাস অভিযোগ করে বলেন, এই ছোট ঘটনায় কোন সংঘর্ষের ঘটনা ঘটতো না। এলাকার প্রভাবশালী বাবুখালী ইউনিয়ন পরিষদের মহিলা সদস্য অঞ্জলি রানী বিশ্বাস ও তার স্বামী দীপুল বিশ্বাস এ ঘটনায় বিরোধীদের পক্ষ নিয়ে আমার বাবার হাত- পা, মাথা বুকে রড দিয়ে আঘাত করে। এলাকায় তাদের অপর্কেমর সাথে আমরা না থাকায় আমাদের অপর প্রতিশোধ নিয়েছে তারা।

এমন অভিযোগের ভিত্তিতে ১ নং বাবুখালী ইউনিয়ন পরিষদের মহিলা সদস্য অঞ্জলি রানী বিশ্বাস ফোনে যোগাযোগ করা হলে তার মোবাইল নম্বরটি বন্ধ পাওয়া যায়।

শেয়ার করুন
  •  
    20
    Shares
  • 20
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *